Bengali tips to remove the underarm hair naturally? – প্রাকৃতিক উপায় বগলের নিচের লোম কিভাবে দূর করবেন?

বগলের নিচের চুল অনেকের জন্যই বিশেষত মহিলাদের জন্য লজ্জার একটা বড় কারণ হয়ে দাড়ায়। গরমকালে মহিলাদের পক্ষে লম্বা বা থ্রি কোয়ার্টার (three-quarter) হাতাওয়ালা টপ (top) বা ব্লাউস (blouse) পরা খুবই সমস্যাজনক হয়। আর গরমে সূর্যের তাপ এবং অস্বস্থি দুটির থেকেই মুক্ত থাকাটা খুব জরুরি। তাই বেশিরভাগ মহিলারাই এই সময় হাতকাটা জামা পড়তে বেশি পছন্দ করে। কিন্তু আপনার বগলে লোম থাক অবস্থায় আপনি হাতকাটা জামা পড়লে তা দেখতে খুবই খারাপ বা দৃষ্টিকটু লাগে। বগলের লোম তোলা এইজন্য প্রয়োজনীয় কারণ এটি আপনাকে সমাজের সামনে পরিষ্কার রাখার সাথে সাথেই আপনাকে নিজের কাছেও পরিষ্কার বানায়। কোনরকম সমস্যা ছাড়াই বগলের লোম তোলার কিছু খুব সহজ এবং কার্যকর ঘরোয়া উপায় আছে।

বগলের লোম তোলার জন্য খুব দামী কোনো প্রোডাক্ট (product) ব্যবহার করা বা স্পা (spa)করা সবসময় দরকারী নয়। বাজারে প্রচলিত লোম তোলার ক্রিম কেনা বা নিয়মিত পার্লারে (parlour) গিয়ে ওয়াক্সিং (waxing) করানোটাও খুবই খরচসাপেক্ষ। কিন্তু কিছু ঘরোয়া উপকরণ ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই আপনার বগলের নিচের অবাঞ্ছিত লোম তুলে ফেলতে পারেন। কিন্তু এইসব উপকরণগুলি সঠিক অনুপাতে মেশানোটা খুবই জরুরি।

বগলের নিচের লোম তলার কিছু টিপস (Tips to remove underarm hair naturally)

স্টেপ ১ (Step 1)

ঠিক ২ কাপ চিনি, ১/৪ কাপ জল, ১/৪ কাপ মধু ও ১/৪ কাপ পাতিলেবুর রস একটি পাত্রে নিন।

স্টেপ ২ (Step 2)

এই পাত্রের মিশ্রণটিকে এইবার ফোটান। হালকা আঁচে উপকরন্গুলিকে ফোটান। অন্তত আধ ঘন্টা ফোটানোর পর আপনি দেখতে পাবেন মিশ্রনটির রং আসতে আসতে গারো বাদামী (deep brown) হয়ে এসেছে। ক্যান্ডি (candy) থার্মোমিটারে তাপমাত্রা প্রায় ২৪৬ ডিগ্রী হলে পাত্রটিকে নামিয়ে নিন এবং ঠান্ডা হতে দিন।

স্টেপ ৩ (Step 3)

এইবার আপনার বগলের তলা ভালো করে পরিষ্কার করে নিন যাতে একটুও ঘাম লেগে না থাকে। জল দিয়ে বগল পরিষ্কার করার পর শুকিয়ে নিন। এইবার একটি বেবি পাউডার (baby powder) বগলের নিচে লাগিয়ে নিন। সাধারনত মানুষ শরীরের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর করতে বেবি পাউডার লাগায়।

স্টেপ ৪ (Step 4)

এবার ঘরে বানানো ওয়াক্স সিরাপ (syrup) চামচে করে বা হাতে করে বগলের নিচে যেই অংশের লোম বা চুল আপনি তুলতে চান সেখানে ভালো করে লাগান। আপনি যদি এটি প্রথমবার ব্যবহার করেন তাহলে প্রথমে অল্প একটু জায়গায় এটি লাগিয়ে দেখে নিন যে আপনার ত্বকে কোনরকম এলার্জি (allergy) হচ্ছে কিনা। আপনার হাতে অল্প লাগিয়েও আপনি এটি দেখে নিতে পারেন যে এই ওয়াক্স লাগানোর সাথে সাথে কোনো এলার্জি হচ্ছে কিনা। যদি কিছু না হয় তাহলে আপনি নিশ্চিন্তভাবে এই ওয়াক্স বগলের নিচে লাগাতে পারেন।

স্টেপ ৫ (Step 5)

এই মিস্রন্তিকে কিছুক্ষণ রেখে শুকোতে দিন। শুকিয়ে শক্ত হয়ে গেলে অন্য হাত দিয়ে চিনির ওয়াক্সটি আপনার বগলের তলা থেকে তুলতে শুরু করুন। আপনাকে আপনার বগলের নিচে চামড়া খুব জোরে টেনে ধরতে হবে যাতে ত্বকে কোনো ভাঁজ না পরে। খুব দ্রুত টেনে ওয়াক্সটি তুলতে হবে।

স্টেপ ৬ (Step 6)

সমস্ত অবাঞ্ছিত লোম তুলে ফেলার পরও যদি কিছু ওয়াক্স লেগে থাকে তাহলে হালকা গরম জল ও সাবান দিয়ে সেটি পরিষ্কার করে তুলে ফেলুন। লোম তোলার পর একটি হালকা ময়স্চারায়জার (moisturizer) লাগানো খুবই জরুরি। এত আপনার ত্বককে নরম ও মসৃন রাখে।

প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে বানানো ওয়াক্সটি একটি ঠান্ডা জায়গায় রেখে দিন যাতে যখনি আপনার হাতে, পায়ে বা বগলের নিচে লোম দেখা দেয় তখনি আপনি সেটি ব্যবহার করতে পারেন। ফ্রিজে (fridge) রাখলে এটি খুব ভালো থাকে।

বগলের নিচের লোম তোলার কিছু ঘরোয়া উপায় (Natural way to remove underarm hair)

চানা ময়দা মাস্ক (Chickpea flour mask)

ভারতবর্ষের লোকেরা বিভিন্ন রকমের ভোজ্য খাবার বানানোর জন্য চানার ময়দা (chickpea flour)ব্যবহার করে। এই অসাধারণ উপকরণটি বগলের অবাঞ্ছিত লোম তোলার জন্যও খুব ভালো কাজ করে। এর জন্য ১/২ বাটি চানা ময়দা, ১ চাচামচ হলুদ, ১/২ বাটি দুধ এবং ১ চাচামচ ফ্রেশ ক্রিম (fresh cream) লাগবে। এইসব উপকরণ একটি বাটিতে নিয়ে ভালো করে মেশান এবং একটি ঘন পেস্ট বানান। এবার এই মিশ্রন আপনার বগলের নিচে যেদিকে লোম বেড়েছে সিডিকে লাগান। বগলের সব লোমের উপর যেন ভালোভাবে এই পেস্ট লাগানো হয়। আধ ঘন্টা এভাবে রেখে যেদিক করে পেস্ট লাগিয়েছিলেন তার উল্টোদিকে ঘষে তুলুন। হাত দিয়ে সব পেস্ট উঠিয়ে গরম জল দিয়ে ধুয়ে নিন।

বগলের লোম তোলার জন্য ডিমের মাস্ক (Egg mask for under arm hair)

এই মাস্ক বানানোর জন্য ডিমের সাদা অংশ, ১/২ চাচামচ কর্নফ্লার (cornflour) এবং ১ চাচামচ চিনি নিতে হবে। একটি বাটিতে ডিমের সাদা অংশ, কর্নফ্লার ও চিনি একে একে মেশান ও ভালো করে মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট বানান। এই পেস্ট বগলের নিচের অংশে লাগান এবং কিছুক্ষণ শুকোতে দিন। আপনি আপনার ত্বকের ওপর একটি শুকনো মাস্কের আস্তরণ দেখতে পাবেন। এইবার এই মাস্কটি উল্টো দিকে টেনে তুলে ফেলুন যার সাথে আপনি দেখতে পাবেন আপনার বগলের লোমও উঠে আসছে।

বগলের লোম তুলতে আলু ও মসুর ডাল (Potato – lentil under arm hair removal)

প্রাকৃতিক উপায় বগলের লোম তলার আরেকটি দারুন উপকরণ হলো আলু। যেহেতু আলু প্রাকৃতিক ব্লিচিং (bleaching) উপাদান হিসেবে কাজ করে তাই এর সাহায্যে কোনো কসমেটিক (cosmetic) এফেক্ট (effect) ছাড়াই ত্বকের অবাঞ্চিত লোম তোলা যায়। এর জন্য লাগবে এক বাটি মসুর ডাল, একটি খোসা ছাড়ানো ও কাটা আলু, ৪ চামচ পাতিলেবুর রস, ১ চামচ মধু ও একটি পাতলা কাপড়ের টুকরো। মসুর ডাল একটি বাটিতে নিয়ে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। সকালে এই মসুর ডাল বেটে একটি পেস্ট তৈরী করুন। এর সাথে আলুর টুকরোগুলি মেশান। এই পেস্ট আপনি যেই জায়গার লোম তুলতে চান সেখানে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট রাখুন এবং আঙ্গুল দিয়ে ঘষে তুলে ফেলুন।

অবাঞ্ছিত লোম তোলার জন্য কাঁচা পেঁপে (Raw papaya for removing underarm hair)

অবাঞ্ছিত লমকে গোড়া থেকে তুলে ফেলার জন্য কাঁচা পেপের কোনো বিকল্প হয়না। কাঁচা পেপেতে প্যাপাইন (papain) নামক একটি এনজাইম (enzyme) থাকে যা লোম গোড়া থেকে ভাঙ্গতে সাহায্য করে। এটি অবাঞ্ছিত লোমকে আপনার শরীর থেকে তুলে ফেলার সাথে সাথে আবার এই লোমের বৃদ্ধিতেও বাধা দেয়। কাঁচা পেঁপে লাগালে আপনার ত্বকের গঠনও অনেক ভালো হয়ে ওঠে। এই পেস্ট বানাতে প্রয়োজনীয় উপকরণগুলি হল ১-২ চামচ কাঁচা পেঁপের পেস্ট এবং ১/২ চামচ হলুদগুড়ো। এই দুটি মিশ্রন ভালো করে মিশিয়ে আপনার ত্বকে লাগান ও মাসাজ (massage) করুন। ১৫ মিনিট ধরে এই পেস্টটি মাসাজ করতে হবে। ১৫ মিনিট পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন র পেয়েজান লোমহীন সুন্দর ত্বক। সপ্তাহে ১-২ বার এই পদ্ধতি মেনে চললে আপনি সহজেই পেতে পারেন লোমহীন, উজ্জ্বল ও ফর্সা ত্বক। এটি একটি ঘরোয়া ও প্রাকৃতিক উপায় হওয়ার জন্য এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

loading...