Bengali tips to grow breast faster for tennage girls – বক্ষস্থল জলদি বড় করার উপায়

কিশোরী মেয়েরা ২০ বছর বয়েসের বা টার বেশি বয়েসের বৌগুলোকে হিংসা করে, কেনকি ওদের বক্ষস্থল খুব সুন্দর আর বড় থাকে। কিশোরীদের মদ্দেও কোনো কোনো মেয়ের বক্ষস্থল অনেক জলদি বাড়ে, আর কেউ কেউ এই ব্যাপারে পেছনে থেকে যায়। হরমোন (hormone) বেরোনোর জন্যে এতে অন্য শারীরিক কাজে বাধা পড়ে।

বাড়তি মেয়েদের একটু ব্যাথা হুয়া প্রাকৃতিক হয়। কিনতু এত ব্যাথার পরও ওদের বক্ষস্থল ঠিক করে বিকশিত হয়ে ওঠেনা। এতে ওদের মাইর চিন্তা হয় আর তারা বিভিন্ন উপায়ে নিজের মেয়ের বক্ষ বড় করে তলার উপায় খুজত থাকেন। এমনি কিছু ঘরোয়া উপায় আছে যেটা ব্যাবহার করলে বিনা কোনো সাইড ইফেক্ট হয়ে মেয়েদের বক্ষ বড় হয়ে যায়। যদি আপনি শল্যক্রিয়া করাতে চান তো এতে বক্ষস্থল বড় করা খুবই সোজা হবে। কিন্তু শল্যক্রিয়ায় অনেক হানি ও হয় আর এতে আপনার শরীরের আগে যেয়ে অনেক ক্ষতি হতে পারে।

আপনার যৌবনারম্ভ হওয়ার সময় আপনি নিজের বক্ষের আকারে অন্তর বুঝতে পারবেন। এটাকে নিজের প্রাকৃতিক ভাবে বাড়তে দিন আর কোনো ও ভাবে কোনো চিন্তা করবেননা। কিনতু যদি আপনি নিজের বক্ষ জলদি বড় করতে চান তো কিছু ঘরোয়া উপায় ব্যাবহার করতে পারেন।

বিধি (Measures)

ওজন বাড়ানো একটা মুখ্য বিধি। আপনার ওজন বাড়ার সাথেই প্রাকৃতিক ভাবে আপনার বক্ষ ও বড় হয়ে যাবে। যদি আপনার মনে হচ্ছে যে আপনার বক্ষ খুব ধীরে বড় হচ্ছে তো আপনি নিজের ডাক্তার কে নিজের হরমোন পরীক্ষা করতে বলতে পারেন। বক্ষ বড় করার কিছু ব্যায়াম শুরু করুন। বাদাম, ছানা, পনীর, দই আদি স্বাস্থ্যকর জিনিস খান। আপনি জিমে যেয়ে ভালো সময় ও কাটাতে পারেন। আপনার প্রশিক্ষক আপনার দরকার মত ব্যায়ামের সম্পর্কে আপনাকে বুঝিয়ে দিতে পারবে। ১৩ থেকে ১৫টা পূশ আপ (push-ups) করুন, ওজন ওঠান আর এমনি অন্য ব্যায়াম করুন যাতে আপনার বুকের জোর লাগে।

পূশ আপ করার জন্যে সামনাসামনি মাটির সামনে আসুন আর হাথ মাটিতে রেখে দিন। নিজের পা মাটিতে সোজা করুন আর নিজের হাথের জোরে নিজেকে উপরে তুলুন আর আবার ধীরে ধীরে নামুন। এই প্রক্রিয়া ১৩ থেকে ১৫ বার করুন আর আপনি নিজের হাথে আর বুকে একটু বেশি শক্তির অনুভব করবেন। কুয়ো থেকে জল বের করলেও আপনার বুকের জোর লাগে যাতে আপনার বক্ষ জলদি বড় হয়।

আপনি দুই দিকে ডাম্বেল (dumbbells) বা অন্য ওজন নিয়ে আর এগুলোকে উঠিয়ে চেস্ট প্রেস ও (Chest presses) করতে পারেন। পাটিতে সোজা দাড়িয়ে যান আর নিজের হাঁটু মুড়ে দুটো হাথে ওজন ওঠান। ধীরে ধীরে এই ওজন নিজের কাঁধ অব্দি ওঠান আর আবার আগের মুদ্রায় চলে আসুন। এটা দিনে ১০ থেকে ১৫ বার করুন আর আপনি খুব সহজে অন্তর বুঝতে পারবেন। চেস্ট কন্ট্রাকশন (chest contraction) ও আরেকটা ব্যায়াম। নিজের পা ফাঁক করে সোজা দাড়িয়ে যান। নিজের স্নান করার তোয়ালে দুই হাথে ধরুন আর এটা নিয়ে নিজের হাথ সোজা করুন। দুটো দিকের তোয়ালের কনা দুই দিকে টানুন। এটা একবারে ৩০ সেকেন্ড থেকে ১ মিনিট অব্দি করুন আর এই ব্যায়াম টা ৩ বার করুন।

আপনি বেশি কোনো বেশি পরিশ্রম করেও চেস্ট ফ্লাই (Chest flys) বাড়িতেই করতে পারেন। একটা চেয়ার (chair) নিয়ে মাঝে বসুন আর আর দুটো হাথে এক সমান ওজন রাখুন। এইভাবে ধীরে ধীরে হাথ উঠিয়ে কাঁধ অব্দি আনুন আর ধীরে ধীরে নীচে নামান। এই কথাটা মনে রাখুন যে আপনার হাথ এক দুটোর পাশাপাশি থাকা উচিত আর এই দুটো আপনার শরীরের নিচের ভাগের কাছে থাকা উচিত। এই ব্যায়াম টা ৩ বার করে দিনে ১২ বার করুন। রাতে বিনা ব্রা (bra) পড়ে শুন।

বক্ষস্থলের জানকারী দেওয়া বই আর লেখ পড়ুন। বক্ষের আকার বাড়ানোর জন্যে ব্যায়াম আর পুষ্টিকর খাদ্য খুবই দরকার। শোধে এটা পাওয়া গেছে যে রোজ পেফের রস আর দুধ খেলে বক্ষের আকারে বৃদ্ধি হয়। এই দুটোয় অনেক রকম প্রোটিন, ভিটামিন (proteins, vitamins) আর অন্য পুষ্টিকর তত্ত্ব থাকে যা আপনার বক্ষের আকারে বৃদ্ধি করে। আপনি তাজা পেফে খেয়েও বক্ষের আকার বাড়াতে পারেন।

বক্ষের আকার বাড়ানোর জন্যে আপনি মেয়েদের জন্যে পূরক খাদ্য উত্পাদ এবং অন্য তৃণ আর ঔসধির সেবন করতে পারেন। এতে আপনি খুব কম সময়ে খুবই অন্তর বুঝতে পারবেন। প্রোটিন যুক্ত স্বাস্থকর খাওয়ার যেরকম ডিম, মাছ, দুধ আর মাংশ খান। প্রোটিন যুক্ত খাদ্য উত্পাদ সম্বন্ধে খোজ করুন আর এগুলোর সেবন করুন। চিনি, প্রসেস্ড (processed)খাদ্য উত্পাদ আদি থেকে দূরে থাকুন। এর বদলে অনেক মাত্রায় জল খান।

রোজ সকালে আর বিকেলে নিজের বক্ষের ভালো করে মালিশ করুন। এতে আপনার বক্ষের কোষের খুব লাভ হয়। ১ চামুচ অতশির বীজ রোজ খেলেও আপনার বক্ষ বড় হয়ে যাবে। এটাও পরীক্ষা করে নিন যে আপনি নিজের জন্যে ঠিক আকারের ব্রা ব্যবহার করছেন।

খাদ্য উপায় যার দারা আপনার বক্ষ জলদি বড় হবে (Here are some diet remedies that you must follow to grow breast faster)

এস্ত্রজেন (Estrogen) যুক্ত খাওয়ার আপনার বক্ষ বড় করার কাজ করে। হরমোন নিয়ন্ত্রিত না থাকা ও বক্ষ ছোট থেকে যাওয়ার একটা কারণ। নীচে এস্ত্রজেন যুক্ত কিছু খাওয়ারের সূচী দেওয়া হয়েছে।

ফল আর তরকারী (Fruits & vegetables)

এগুলোতে অনেক মাত্রায় এস্ত্রজেন থাকে। খেজুর, চেরি (cherries), আপেল আদি রোজ নিজের খাওয়ারে যোগ করুন।

মেথি (Fenugreek)

বক্ষ বড় করার জন্যে এটাও খুব ভালো কাজে লাগে। এইজন্যে এমনি খাওয়ার খান যাতে মেথির মাত্রা থাকুক। মেথির পাতায় বক্ষে দুধের মাত্রাও বাড়ে।

সোয়াবীন (Soya bean)

সোয়াবীনের উত্পাদে, যেমনি সোয়া দুধ, সোয়া মাখন, সোয়া কফি (coffee), সোয়া ব্রেড (bread) আদি তে অনেক মাত্রায় এস্ত্রজেন থাকে। বক্ষের আকার বাড়ানোর জন্যে সোয়ার উত্পাদ আপনার খুব সাহায্য করে।

অতসির বীজ (Flax seeds)

এতেও আপনার বক্ষের আকার অনেক বেশি বেড়ে যায়। আপনি বক্ষের আকার বাড়ানোর জন্যে অন্য বীজ যেরকম লাওএর বীজ, সূর্যমুখীর বেজ আদির সাহায্য ও নিতে পারেন।

মটর আর বীন্স (Peas & beans)

আপনি মটর আর বীন্স থেকে প্রাকৃতিক এস্ত্রজেন পেতে পারেন। কিডনি পীস, লাল বীন্স, লিমা বীন্স, কাবুলি চানা আর পার্সলে (Kidney peas, red beans, lima beans, chickpeas and parsley) প্রোটিন যুক্ত অন্য উত্পাদের সাথে খান। এতে আপনার বক্ষের আকার বাড়ে।

সেজের পাতা (Sage leaves)

সেজ একটা খুব ভালো ঔষধি যেটা বক্ষ বড় করাতে ব্যাবহার করা হয়। এটা এস্ত্রজেনে ভর্তি থাকে যার জন্যে এটা খুব ভালো করে আপনার বক্ষ বড় করায় সাহায্য করে।

অলিভ অয়েল (Olive oil)

অলিভ অয়েল আপনার বক্ষ বড় করার খুব সঠিক উপায়। শুদ্ধ অলিভ অয়েল আর কালো অলিভের সেবন করলে বক্ষের আকার বাড়ে।

সবসময় ধৈর্য রাখুন। আপনার বক্ষের আকার ধীরে ধীরে বাড়বে আর আপনি এটা জলদি ই বুঝতে পারবেন। যদি আপনি যৌবনবস্থা থেকে পার হচ্ছেন তো আপনার বক্ষ ধীরে ধীরেই বড় হবে।

বক্ষ বড় করার জন্যে হিপনোসিসের উপায় (Technique of hypnosis for enlargement of breast)

হিপনিসিসের অনেক পরীক্ষা করা হয়েছে আর এটাতে ইটা পাওয়া গেছে যে বক্ষর আকার বড় করাতে এটা খুবই কাজের সিদ্ধ হয়। এই উপায় দিয়ে আনার শারীরিক ভাগ শরীরের এক একটা ভাগের সাথে নিজের আলাদা ভাষায় কথা বলতে পারে। এটা জানা খুবই আশ্চর্যজনক, কিনতু এইভাবে কথা বলায় শরীরের আলাদা আলাদা বাহাগে কোষ তৈরী হয়। সব ভাগে হরমোন এক সাথে ভালো করে কাজ করলেই বক্ষের আকার বাড়া নিশ্চিত থাকে।

loading...